F

 

আজ ১০০ দিনের কাজের ওয়েস্ট বেঙ্গল এমজিএনআরইজিএ অল এমপ্লয়িস অ্যাসোসিয়েশনের উদ্যোগে রাজ্যের সাথে খড়িবাড়ি ব্লকে কর্মবিরতি শুরু হয়েছে।

খড়িবাড়ি : ৯ ফেব্রুয়ারি ১০০ দিনের কাজের ওয়েস্ট বেঙ্গল এমজিএনআরইজিএ অল এমপ্লয়িস অ্যাসোসিয়েশনের উদ্যোগে রাজ্যের সাথে খড়িবাড়ি ব্লকে কর্মবিরতি শুরু হয়েছে। কর্মবিরতির জেরে জবকার্ডধারীদের ১০০ দিনের কাজের মজুরির টাকা তাদের ব্যাঙ্কে ঢুকবে কিনা তা নিয়ে চরম অনিশ্চয়তায় দিন কাটাচ্ছেন গরিব জবকার্ডধারীরা। 

মঙ্গলবার খড়িবাড়ি বিডিও অফিসে খড়িবাড়ি ব্লক ও চারটি গ্রাম পঞ্চায়েতের ১০০দিনের কাজের সমস্ত চুক্তিভিত্তিক কর্মীরা দফায় দফায় বিক্ষোভ দেখান। বেতন বৃদ্ধি ও ৬০ বছর পর্যন্ত চাকরির স্থায়িত্বের দাবিতে গত ৩ফেব্রুয়ারি থেকে কর্মবিরতি শুরু করে চুক্তিভিত্তিক কর্মীরা। 

এটিও পড়ুন: -খড়িবাড়ি থানা একটি গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে একজনকে গ্রেফতার করেন পুলিশ।

১০০দিনের কাজের জব কার্ড তৈরি থেকে শুরু করে পেমেন্ট  পর্যন্ত যাবতীয় কাজ এই চুক্তিভিত্তিক কর্মীরা করে।আর ৩ফেব্রুয়ারি থেকে লাগাতার চুক্তিভিত্তিক কর্মীরা কর্মবিরতি করায় খড়িবাড়ি ব্লকে প্রকল্পের কাজ গতি হারিয়েছে। জানা যায়,খড়িবাড়ি ব্লকের চারটি গ্রাম পঞ্চায়েতে বর্তমানে প্রতিদিন প্রায় ৮০০ জবকার্ডধারীরা ১০০দিনের কাজ করছেন। 

তাদের ব্যাংক একাউন্টে এবার মজুরির টাকা ঢুকবে কি না  তা নিয়ে পড়েছেন গরিব মানুষগুলো।সংগঠনের খড়িবাড়ি ব্লক শাখার পক্ষ থেকে আজ খড়িবাড়ি বিডিওকে স্মারকলিপি দেওয়া হয়। 

এটিও পড়ুন: - রানীগঞ্জ বিন্যাবাড়ী ভারতীয় জনতা পার্টি কিষান মোর্চার পক্ষ থেকে গ্রামবাসীদের খিচুড়ি খাওয়ানো হল।

সংগঠনের সম্পাদক সুতীর্থ মণ্ডল জানান, সামান্য  পারিশ্রমিকে ৯বছর ধরে কাজ করার পরও রাজ্য সরকার তাদের বঞ্চিত করেছে।যদিও তাদের কাজের জন্যই পশ্চিমবঙ্গ ১০০দিনের কাজে দেশের মধ্যে প্রথম স্থানে রয়েছে। 

তাদের দীর্ঘ আন্দোলনকে রাজ্য সরকার গুরুত্ব না দেওয়ায় তারা বাধ্য হয়ে অনির্দিষ্টকালের জন্য কর্মবিরতির ডাক দিয়েছেন। বেতন কাঠামো চালু এবং ৬০ বছর বয়স পর্যন্ত কাজের নিশ্চিতার দাবি মানা না হলে তার লাগাতার কর্মবিরতি চালিয়ে যাওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন। 

এটিও পড়ুন: - খরিবাড়ি ব্লকের বুড়াগঞ্জ গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার ক্ষেত্রসিং প্রাথমিক বিদ্যালয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে এক অঞ্চল কমিটি সভা আয়োজন করা হয়।

এদিকে চুক্তিভিত্তিক কর্মীদের লাগাতার কর্মবিরতিতে একশ দিনের জব কার্ড ধারী শ্রমিকরা তাদের পারিশ্রমিকের টাকা সঠিক সময় ব্যাঙ্কে পাবেন কিনা তা নিয়ে চিন্তায় পড়েছেন। খড়িবাড়ি বিডিও সঞ্জয় পন্ডিত বলেন, চুক্তিভিত্তিক কর্মীরা ৩ফেব্রুয়ারি থেকে কর্মবিরতি করছেন।

তাদের স্বারকলিপিটি  ঊর্ধতন কর্তৃপক্ষের কাছে পাঠানো হয়েছে। জবকার্ডধারী ১০০ দিনের কাজের শ্রমিকরা যাতে সঠিক সময়ে টাকা পায় তার চেষ্টা করা হবে বলে তিনি আশ্বাস দিয়েছেন।

ব্যুরো রিপোর্ট : রোজ খাবার দুনিয়া।                        Amazon

Post a Comment

Previous Post Next Post